অম্ল, ক্ষার এবং লবণ সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন উত্তর

 Q.1. বিলীয়মান রং কী এবং এর এরুপ নামকরণের কারণ কী?

উত্তর: ফেনলপথ্যালিনযুক্ত অ্যামােনিয়াম হাইড্রক্সাইডের জলীয় দ্রবণকে বিলীয়মান রং বলে। অ্যামােনিয়াম হাইড্রক্সাইডের জলীয় দ্রবণ একটি মৃদু ক্ষার। এতে কয়েক ফোটা ফেনলথ্যালিন যােগ করলে দ্রবণের

বর্ণ লালচে-গােলাপি হয়। এই গােলাপি দ্রবণ সাদা জামা কাপড়ের ওপর ছিটিয়ে দিলে তা প্রথমে গােলাপি হয়। পরে এই রং থেকে উদ্বায়ী অ্যামােনিয়া ধীরে ধীরে বাষ্পীভূত হয়ে যায়, ফলে কাপড়ের গোলাপি রং অদৃশ্য হয়ে যায়। তাই একে বিলীয়মান রং বলা হয়।



Q.2. ধাতব পাত্রে অ্যাসিড রাখা হয় না কেন?

উত্তর : ধাতুগুলি বিভিন্ন মাত্রায় বিভিন্ন অ্যাসিডের সঙ্গে রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটায়। যেমন – সােডিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালশিয়াম, কপার, আয়রন প্রভৃতি ধাতুঅজৈব অ্যাসিডের সঙ্গে তীব্রভাবে বিক্রিয়া করে হাইড্রোজেন গ্যাস উৎপন্ন করে। অ্যালুমিনিয়াম, জিংক, আয়রন প্রভৃতি ধাতুগুলি অজৈব অ্যাসিডের সঙ্গে বিক্রিয়া করে লবণ ও হাইড্রোজেন উৎপন্ন করে। তাই ধাতব পাত্রে সাধারণত অ্যাসিডগুলিকে রাখা হয় না।


Q.3. সমস্ত হাইড্রোজেনে যুক্ত যৌগ অ্যাসিড নয় কেন?

উত্তর : অ্যাসিডের সংজ্ঞানুসারে অ্যাসিড মাত্রই হাইড্রোজেন যুক্ত যৌগ। অ্যাসিডের এই হাইড্রোজেন ধাতু বা ধাতু সদৃশ মূলক

দ্বারা সম্পূর্ণ বা আংশিক প্রতিস্থাপিত হতে হবে। আবার, অ্যাসিড ক্ষারকের সহিত বিক্রিয়ায় লবণ ও জল গঠন।

করবে।

 যেমন ঃ H2SO4, HNO3, HCl এই ধর্ম দেখায়। কিন্তু CH4 জাতীয় যৌগে হাইড্রোজেন উপস্থিত থাকলেও এই হাইড্রোজেন ধাতু দ্বারা প্রতিস্থাপনযােগ্য নয়। আবার, অ্যামােনিয়া (NH3)-এর হাইড্রোজেন ধাতু দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয় এবং বিক্রিয়ায় লবণ উৎপন্ন হয়। কিন্তু জল উৎপন্ন হয় না। তাই অ্যামােনিয়া হাইড্রোজেন যুক্ত যৌগ হলেও অ্যাসিড নয়। এই কারণে বলা হয়, সমস্ত হাইড্রোজেন যুক্ত যৌগ অ্যাসিড নয়।


Q.4. NH3 বা NaOH—অ্যাসিড নয় কিন্তু CH3COOH-কে অ্যাসিড বলা হয় কেন?

উত্তর : NH3 বা NaOH অণুতে H-পরমাণু থাকলেও এরা জলীয় দ্রবণে– 

         (i) H2O+ আয়ন উৎপন্ন করে না,

         (ii) নীল লিটমাসকে লাল করে না,

         (iii) ক্ষারকের সঙ্গে বিক্রিয়া করে লবণ ও জল উৎপন্ন করে না,

         (iv) কার্বনেট বা

বাইকার্বনেট লবণের সঙ্গে বিক্রিয়ায় C02 মুক্ত করে না। সুতরাং, NH3 বা NaOH-কে অ্যাসিড বলা যায় না। অপরদিকে CH3COOH জলীয় দ্রবণে বিয়ােজিত হয়ে ক্যাটায়ন রূপে H+ আয়ন উৎপন্ন করে। তাই ইহা অ্যাসিড ধর্ম

প্রদর্শন করে। সুতরাং, CH3COOH একটি অ্যাসিড।


Q.5. অজৈব ও জৈৰ আসিড কী? উদাহরণ দাও।

উত্তর : অজৈব অ্যাসিড :- অজৈব পদার্থ থেকে যে-সব অ্যাসিড উৎপন্ন হয়, তাদের অজৈব অ্যাসিড বলা হয়।

          যেমন :সালফিউরিক অ্যাসিড, নাইট্রিক অ্যাসিড ইত্যাদি। এদের অপর নাম খনিজ অ্যাসিড।

          জৈব অ্যাসিড: উদ্ভিদ ও প্রাণীদেহ থেকে যেসব কার্বন-পরমাণুযুক্ত অ্যাসিড পাওয়া যায়, তাদের বলে জৈব অ্যাসিড।

          যেমন— ম্যালিক অ্যাসিড, টার্টারিক অ্যাসিড, ল্যাকটিক অ্যাসিড, ফরমিক অ্যাসিড প্রভৃতি।

Q.6. pH স্কেল কী? কোনাে দ্রবণের ক্ষেত্রে pH-এর মানটি গুরুত্বপূর্ণ কেন?

[CBSE 2013] ।

উত্তর: যে স্কেল ব্যবস্থার মাধ্যমে কোনাে দ্রবণ কতটা আম্লিক বা কতটা ক্ষারকীয় বা প্রশম কিনা তা পরিমাপ করা হয় তাকে pH স্কেল বলে। কোনাে দ্রবণের ক্ষেত্রে এর pH-স্কেলের মান খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কোনাে দ্রবণ কতটা আল্লিক বা কতটা ক্ষারীয় তার ধারণা।

পাওয়া যায় ওই দ্রবণটির pH-এর মান থেকে। দ্রবণের pH-এর মান নির্দেশ করে দ্রবণটি আম্লিক, ক্ষারীয় না প্রশম।

       যেমন, pH= 7 একটি প্রশম দ্রবণকে নির্দেশ করে। আবার আল্লিক দ্রবণের ক্ষেত্রে pH < 7 এবং ক্ষারীয় দ্রবণের ক্ষেত্রে pH>7 হয়।


Post a Comment

Previous Post Next Post